বাংলাদেশেসর্বশেষ

কেন্দুয়ায় ঝগড়া থামাতে গিয়ে প্রতিপক্ষের মারধরে নারীর মৃত্যু

নেত্রকোনার কেন্দুয়া উপজেলায় ঝগড়া থামাতে গিয়ে প্রতিপক্ষের লোকজনের মারধরে এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। গতকাল শনিবার সন্ধ্যায় উপজেলার পাঁচহার বড়বাড়ি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত নারীর নাম মুস্তরা আক্তার ওরফে সুফিয়া (৫৮)। তিনি পাঁচহার বড়বাড়ি গ্রামের নূর উদ্দিনের (৬৫) স্ত্রী। মারধরে মুস্তরা আক্তারের স্বামী, সন্তানসহ পরিবারের আরও তিনজন আহত হয়েছেন।

এলাকার কয়েক বাসিন্দা ও পুলিশের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, বাড়ির সীমানা নিয়ে নূর উদ্দিনের সঙ্গে প্রতিবেশী আঙ্গুর মিয়ার (৫৫) দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। গতকাল সন্ধ্যার আগে বিরোধপূর্ণ ওই জায়গায় একটি গাছের সঙ্গে নূর উদ্দিনের ছেলে আয়াতুল মিয়া (৩৮) তাঁর গরু বেঁধে রাখেন। এতে আঙ্গুর মিয়া বাধা দেন। এ নিয়ে দুজনের মধ্যে কথা-কাটাকাটির একপর্যায়ে ঝগড়া শুরু হয়। এ সময় নূর উদ্দিন ও তাঁর স্ত্রী মুস্তরা আক্তার ঝগড়া থামাতে আসেন। তখন প্রতিপক্ষের লোকজন মুস্তরা আক্তারসহ তাঁর স্বামী ও সন্তানকে মারধর করেন। এতে মুস্তরা গুরুতর আহত হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। পরে পরিবারের লোকজন ও স্থানীয় লোকজন তাঁকে উদ্ধার করে কেন্দুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ বিষয়ে কথা বলতে আঙ্গুর মিয়ার মুঠোফোন নম্বরে কল দিলে সেটি বন্ধ পাওয়া যায়। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ঘটনার পর থেকে তিনিসহ পরিবারের সদস্যরা বাড়ি ছেড়ে পলাতক।

কেন্দুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আলী হোসেন আজ সকালে প্রথম আলোকে বলেন, মুস্তরার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য আজ সকালে নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ নিয়ে থানায় এখনো মামলা হয়নি। তবে জড়িত ব্যক্তিদের আটক করতে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে।

Related posts

রাজধানীর একটি হাসপাতালে ভর্তি আছেন পরীমণি

Megh Bristy

‘আমির খান আমাকে আসলে তাকে থাপ্পড় দিতে বলেছিলেন’

Megh Bristy

ভাইরাল অডিও নিয়ে মুখ খুললেন বুবলী, দোষলেন অপু বিশ্বাসকে

Suborna Islam

Leave a Comment