লাইফ স্টাইলসর্বশেষ

চিকিৎসকরা মনে করেন ফ্রোজেন ফুড খাওয়া উচিত না

pickynews24

অনেকেই এখন বিভিন্ন অনলাইন গ্রসারি প্ল্যাটফর্ম থেকে ফ্রোজেন খাবার কিনতে অভ্যস্ত। মটরশুঁটি থেকে শুরু করে মাংস, এমনকি ‘রেডি টু ইট’ খাবারও এইভাবে কিনে চটজলদি রান্না করে ফেলেন অনেকেই। তবে এই ফ্রোজেন ফুড খাওয়া কি স্বাস্থ্যকর?

রান্না করা খাবার বহুদিন রান্নাঘরে ফেলে রাখলে সেই খাবারে ছত্রাক জন্মে যায়, খাবার নষ্ট হয়ে যায়। তবে রেডি টু ইট ফ্রোজেন ফুডের ক্ষেত্রে এমনটি ঘটে না।

এ ধরনের রাসায়নিক উপাদানগুলো আমাদের শরীরের ক্ষতি করতে পারে। তবে আরও বেশ কিছু কারণে ফ্রোজেন ফুড খাওয়া থেকে বিরত থাকা উচিত বলে চিকিৎসকরা মনে করেন।

প্রতিদিন এ ধরনের ফ্রোজেন ফুড খেলে খুব দ্রুত হারে ওজন বাড়তে পারে। হৃদযন্ত্রের পক্ষেও এ ধরনের খাবার খুব একটা ভালো নয়।

ফ্রোজেন ফুডের মধ্যে থাকা ফ্যাট হৃদযন্ত্রের ধমনিগুলো অবরুদ্ধ করতে পারে। তাছাড়া এর মধ্যে উচ্চমাত্রায় সোডিয়াম থাকার কারণে এটি রক্তচাপ বাড়াতে পারে।

পুষ্টিবিদদের মতে, এ ধরনের ফ্রোজেন ফুডে ফুড প্রিজারভেটিভ, রং কিংবা ফ্লেভার যোগ করা থাকে। ফলে এর শেলফ লাইফ অনেক বেশি থাকে।

অনেক পরীক্ষায় দেখা গেছে, ফ্রোজেন ফুডে থাকে মনোসোডিয়াম গ্লুটামেট যা একপ্রকার স্বাদবর্ধক। তবে এটি শরীরের জন্য ক্ষতিকর।

রক্তে শর্করার পরিমাণ বাড়িয়ে দেয় এ ধরনের ফ্রোজেন ফুড। প্রতিদিন ফ্রোজেন বা রেডি টু ইট খাবার খেলে ডায়াবেটিসের ঝুঁকি অনেকাংশেই বেড়ে যায়।

এই লেখায় উল্লেখিত দাবি বা পদ্ধতি পরামর্শস্বরূপ। এটি মেনে চলার আগে অবশ্যই সরাসরি বিশেষজ্ঞ বা চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

Related posts

পুরনো কাগজ বেচে ভারত সরকারের আয় হাজার কোটি!

Megh Bristy

মানুষ প্রেমের চিঠি লিখতে এআইকে ব্যবহার করছে

Asma Akter

পৃথিবী থেকে দূরে সরে যাচ্ছে চাঁদ

Samar Khan

Leave a Comment