অর্থনীতিতথ্যপ্রযুক্তিসর্বশেষ

সাত মাসে ৬৬ হাজার ডলার আয় ১৮৫ ডলারের স্টার্টআপ থেকে,

Pickynews24

চ্যাটজিপিটি ব্যবহার করে যুগান্তকারী এআইভিত্তিক গবেষণার টুল তৈরি করেন সাল ও মনিকা । এর নাম দেওয়া হয় ‘ডাইমএডজন’। ব্যবসার নানা পরিকল্পনা ও পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা যায় এই টুলের মাধ্যমে।

চ্যাটজিপিটি ব্যবহার করে এআইভিত্তিক সফল স্টার্টআপ দাঁড় করিয়েছিলেন সাল আইলো ও মনিকা পাওয়ারস। এর জন্য খরচ হয়েছিল মাত্র ১৮৫ ডলার। সাত মাসের মাথায় সেই স্টার্টআপ বিক্রি করেছেন দেড় লাখ ডলারে। তার আগেই এই স্টার্টআপ থেকে আয় হয়েছে ৬৬ হাজার ডলার। যুক্তরাষ্ট্রের এ ঘটনা সিএনবিসির এক প্রতিবেদনে তুলে ধরা হয়েছে।

এআইভিত্তিক চ্যাটবট চ্যাটজিপিটিকে সুনির্দিষ্ট প্রশ্ন করে মূল্যবান ও অন্তর্দৃষ্টিসম্পন্ন উত্তর বের করার মাধ্যমে ডাইমএডজনতের উৎপত্তি।

বাজারে এই আইডিয়ার চাহিদা রয়েছে বলে সাল ও মনিকা বুঝতে পারেন। এ জন্য এআইভিত্তিক গবেষণার টুল তৈরি করেন তাঁরা দুজনে।

ফরমের মাধ্যমে উদ্যোক্তাদের আইডিয়া বা ব্যবসায়িক পরিকল্পনা জমা নেওয়া হয় । এরপর পরিশীলিত অ্যালগরিদম ব্যবহার করে তথ্যগুলো বিস্তারিত প্রতিবেদনে রূপান্তরিত করা হয়। এই প্রতিবেদনে বিনিয়োগকারী, গ্রাহক ও প্রতিযোগীদের নিয়ে বিশ্লেষণমূলক তথ্য থাকে।

ডাইমএডজনের কার্যকারিতা খুব দ্রুতই প্রমাণিত হয়। প্রথাগত বিশ্লেষণী কোম্পানি ও সার্চ ইঞ্জিনের চেয়ে দ্রুত ফলাফল দিতে পারে এই টুল। খুবই কম বিনিয়োগ করে এই ব্যবসায় সাফল্য পান এ দুই বন্ধু। সাত মাসের মধ্যে ডাইমএডজনের আয় হয় ৬৬ হাজার ডলার।

সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার ফেলিপ অ্যারোসেমেনা ও প্রোডাক্ট ডিজাইনার ড্যানিয়েল ডি কর্নেইল স্বামী-স্ত্রী জুটির কাছে এ দুই বন্ধুর খবর পৌঁছায়। ডাইমএডজনের সমূহ সম্ভাবনা দেখতে পান এই জুটি। সুযোগ পেয়েই সাল ও মনিকার কোম্পানিটি প্রায় দেড় লাখ ডলারে কিনে নেন।

বিক্রির পরেও সাল ও মনিকা  ডাইমএডজনে পরামর্শক হিসেবে সক্রিয় রয়েছেন। সপ্তাহে কিছু সময় কোম্পানির বিকাশে কাজ করেন তাঁরা। টুলটি নিয়ে আইলোর অনেক উচ্চাকাঙ্ক্ষা রয়েছে। কোম্পানিটি সেলসফোর্সের মতো বড় শিল্পপ্রতিষ্ঠানের নজর কাড়বে বলে তিনি আশা করেন।

Related posts

চুল সাদা হলে গুনাহ মাফ হয় এটা কি সত্যি!

Megh Bristy

জাপানে ভূমিকম্পে নিহত সংখ্যা বেড়ে ১৬১

Suborna Islam

ঘরে আগুন দিলেন বাবা, স্ত্রী-সন্তানদের বন্দি রেখে

Megh Bristy

Leave a Comment