তথ্যপ্রযুক্তিসর্বশেষ

উইন্ডোজ ফোনের প্রতিশোধ গুগলের ওপর

Pickynews24

ইউটিউব চালাতে গেলে এখন অ্যাড ব্লকার ব্যবহারকারীদের স্ক্রিনে ভেসে উঠছে একটি নিষেধাজ্ঞা বার্তা। ইউটিউবের এ সিদ্ধান্তের কারণে ক্ষুব্ধ হয়েছেন অনেকে। ইন্টারনেটেও ভেসে বেড়াচ্ছে ইউটিউবের এ পপ–আপ মেসেজ থেকে মুক্তি পাওয়ার নানা উপায়।

ইউটিউব এখন ইন্টারনেটে সর্ববৃহৎ ভিডিও প্ল্যাটফর্ম। বিজ্ঞাপন ও প্রিমিয়াম সাবস্ক্রিপশন থেকে মোটা অঙ্কের আয় করে অ্যালফাবেটের এই প্রতিষ্ঠান। কিন্তু বিজ্ঞাপনের বিরক্তি থেকে নিস্তার পেতে অনেকে ব্রাউজারে অ্যাড ব্লকার এক্সটেনশন ব্যবহার করে। সাধারণত বিনা মূল্যেই এই সুবিধাটি পাওয়া যায়। তবে বিজ্ঞাপন ব্লক করা এখন বেশ জটিল করে তুলেছে গুগল। এমনকি অ্যাড ব্লকার থাকলে ব্রাউজারে ইউটিউব ভিডিও চলবেই না।

অনেকে বলছেন, এ বিড়ম্বনা গুগলেরই কর্মের ফল। কারণ ইউটিউবেরই কারণেই মূলত বাজার হারিয়েছে উইন্ডোজ ফোন!

অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোনের বাজারে স্থান করে নিতে নিজেদের স্মার্টফোন এনেছিল মাইক্রোসফট। ফোনের জন্য আলাদা উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেমও এনেছিল। কিন্তু উইন্ডোজ ফোনের অপারেটিং সিস্টেমকে কোনো ধরনের সহযোগিতা করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছিল গুগল। এমনকি উইন্ডোজ ফোনে থার্ড–পার্টি অ্যাপ ব্যবহার করেও ইউটিউব দেখার উপায় বন্ধ করেছিল গুগল। উইন্ডোজ ফোনে ব্যবহারের উপযোগী মাইক্রোসফটের তৈরি ইউটিউব অ্যাপও ব্লক করে দেওয়া হয়।

এখন সেই শোধ তোলার সুযোগ পেয়েছে উইন্ডোজ ফোন! কারণ এটিই এখন ইউটিউবের অ্যাড ব্লকার বিরোধী পদক্ষেপ এড়ানোর সহজতম উপায়।

ইউটিউবের অ্যাড ব্লকার পপ–আপ থেকে মুক্তির উপায়
ইউটিউবের এ বিরক্তিকর পপ–আপ বন্ধ করার উপায় সম্পর্কে এক্স (টুইটার) প্ল্যাটফর্মে পোস্ট করেছেন একজন ব্যবহারকারী। ইউটিউবের পপ–আপ এখনো অ্যাড ব্লকার বন্ধ করতে বাধ্য করছে না, তবে এমন সিদ্ধান্ত আসা সময়ের ব্যাপার মাত্র। ওই ব্যবহারকারীর দেওয়া উপায়ে পপ–আপটি বন্ধ করতে হলে উইন্ডোজ ফোনের ব্যবহারকারী হতে হয়। যদিও উইন্ডোজ ফোন এখন বাজারে নেই।

এর জন্য প্রয়োজন ব্রাউজারের জন্য তৈরি ইউজার–এজেন্ট সুইচার এক্সটেনশন। এটি ব্যবহার করে ইউজার–এজেন্ট উইন্ডোজ ফোনে পরিবর্তন করা যায়। ইউজার–এজেন্ট হলো একটি এইচটিটিপি হেডার, যা এইচটিটিপি রিকোয়েস্টের সময় ইউজার–এজেন্ট চিহ্নিত করতে সাহায্য করে। মূলত এটি ব্যবহারকারীর ডিভাইস, ব্রাউজার ভার্সন এবং অপারেটিং সিস্টেম চিহ্নিত করতে সাহায্য করে।

এখন পর্যন্ত ইউজার–এজেন্ট উইন্ডোজ ফোনে সেট করার মাধ্যমে ইউটিউব পপ–আপ থেকে মুক্তি পাওয়া সম্ভব। তবে, গুগল ও ইউটিউব যেকোনো সময়ে এ রাস্তা বন্ধ করে দিতে পারে।

অ্যাড ব্লকার ব্যবহার না করতে দেখানো পপ–আপ মেসেজ বন্ধে নানা উপায় বের হওয়ায় ইউটিউবের পদক্ষেপটি খুব একটা কার্যকর হচ্ছে না। এ নিয়ে নিশ্চয়ই বিড়ম্বনায় পড়েছে ইউটিউব কর্তৃপক্ষ

Related posts

২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্ত ৫, সুস্থ ৪

Suborna Islam

‘জয় বাংলা’ ইয়ুথ অ্যাওয়ার্ড ২০২৩

Megh Bristy

বিয়ের পরিকল্পনায় দুই সমকামী মাদরাসাছাত্রীর বাসাভাড়া,

Megh Bristy

Leave a Comment