লাইফ স্টাইলসর্বশেষ

মজবুত হয় দাম্পত্য সম্পর্ক,স্বামী-স্ত্রীর ঝগড়ায়

দাম্পত্য জীবনে ঝগড়া না হওয়াটা কিন্তু গর্বের কোনো বিষয় নয়। কারণ যে সম্পর্কে মনমালিন্য নেয় কিংবা স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে মতের অমিল হয় না সেটি কিন্তু খুব বেশিদিন নাও টিকতে পারে। যদিও অনেক যুগল আছেন যারা ঝগড়া এড়িয়ে চলতে চান।

তারা জানলে অবাক হবেন, একটি সম্পর্ক টিকিয়ে রাখতে মাঝে মধ্যেই ঝগড়া হওয়াটা খুব দরকার। এমনটিই জানাচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। তাই অন্তত একবার হলেও এ কারণেই ঝগড়া করুন। জেনে নিন দাম্পত্যে ঝগড়ায় মেলে কী কী উপকার-

সম্পর্ক স্থায়ী করে

কোনো নির্দিষ্ট বিষয়ে নিজেদের দৃষ্টিভঙ্গী স্পষ্টভাবে প্রকাশের জন্য আমরা সাধারণত তর্ক করি। এটার কারণে শুধুমাত্র নিজেদের মধ্যে চিন্তাভাবনা টিকিয়ে রাখি না, নিজেদের ভিন্ন মনোভাবও অপরের কাছে স্পষ্ট করি।

এতে নিজেদের প্রতি ক্ষোভ থাকে না ও একে অপরকে বুঝতে সুবিধা হয়। অধিকাংশ প্রেমিক যুগল একে অপরের কাছে ক্ষমা চায় ও আরও বেশি ঘনিষ্ঠ হয়। যদি ঝগড়া যুক্তিসঙ্গত হয় তবে এতে ঘনিষ্ঠতা আরও বাড়ে।

ঝগড়ার কারণে সম্পর্কের গভীরতা বাড়ে

পারস্পরিক সম্মান বজায় রেখে যুক্তিসঙ্গত তর্ক করলে সম্পর্কে ঘনিষ্ঠতা বাড়ে। এতে আমরা ভালোমতো বুঝতে পারি কোন আচরণ সঙ্গীর অপছন্দ হচ্ছে।

এ দিকগুলো জানলে আপনি সঙ্গীর সবদিক সম্পর্কে স্পষ্ট হবেন ও এতে পরস্পরের প্রতি গ্রহণযোগ্যতাও বাড়বে।

ঝগড়ায় বিশ্বাস বাড়ে

পারস্পরিক আলোচনার মাধ্যমে নিজেদের চিন্তাধারা একে অপরের কাছে খোলাখুলি বললে বিশ্বাস বাড়ে। অধিকাংশ সময় যুগলরা ঝগড়া এড়িয়ে চলেন।

তবে ঝগড়া ছাড়া সম্পর্ক আসলে পরস্পরের প্রতি গোপনীয়তায় ভরা থাকে। সুস্থ বিরোধে জুটিরা একসময় বুঝতে পারে সঙ্গীর কোন দিকটা বুঝতে তার সমস্যা হয়েছে।

ইতিবাচক অনুভূতি বাড়ে

ঝগড়ার সময় নিজের মতামত জানালে মন হালকা হয়। তবে খেয়াল রাখবেন মতামত জানানোর ক্ষেত্রে রুক্ষ্ম হওয়া যাবে না। সম্পর্কে উত্থানপতন থাকবেই।

একে অপরের গুরুত্ব বুঝতে সুস্থ বিতর্ক প্রয়োজন। প্রত্যেকেরই মতের ভিন্নতা আছে। তবে ঘুমানোর আগেই তা সমাধান করা প্রয়োজন।

আপনার চরিত্রকে উন্নত করে

বিরোধের কারণে আপনার ধৈর্য, সঙ্গীর প্রতি যত্ন ও ভালোবাসা বাড়ায়। আরেকজনের ভুলের সঙ্গে মানিয়ে নিতেও সাহায্য করে। তবে খেয়াল রাখবেন এ ঝগড়া নিয়মিত যেন না হয়। মাঝে মধ্যে ঝগড়া করলে সম্পর্ক আরও মজবুত হবে।

Related posts

কিছু কিছু মানুষের রসুন থেকে সম্পূর্ণ দূরে থাকা উচিত

Asma Akter

গাজার ধ্বংসস্তূপ থেকে নবজাতককে উদ্ধার করা হয়েছে বোমা হামলার ৩৭ দিন পর

Megh Bristy

রেললাইনে দাঁড়িয়ে তরুণ–তরুণীর ঝগড়া, অতঃপর ট্রেনে কাটা পড়ে তরুণের মৃত্যু

Suborna Islam

Leave a Comment