বিশ্বসর্বশেষ

সাপুড়েরা, টাকা না পেয়ে ট্রেনে সাপ ছেড়ে দিলেন

বাজারে-বন্দরে তাবিজ-কবচ, গাছের মূল বিক্রি করতে কবিরাজদের নানা প্রলোভন ও ভীতি দেখানোর কথা শোনা যায়। অনেক সময় একই ধরনের কথাবার্তা শোনা যায়, পথেঘাটে বা মানুষের বাড়ি গিয়ে সাপ খেলা বা জাদু দেখানো ব্যক্তিদের ক্ষেত্রেও।

তবে ভারতের উত্তর প্রদেশ রাজ্যে সম্প্রতি ট্রেনে যা ঘটল, তা রীতিমতো ভয়ংকরই বটে। যাত্রীদের কাছ থেকে চাহিদামতো টাকা না পেয়ে চার সাপুড়ের একটি দল রীতিমতো লঙ্কাকাণ্ড ঘটিয়েছে। তাঁরা চলন্ত ট্রেনে সাপ ছেড়ে দেন। এতে যাত্রীদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।

চম্বল এক্সপ্রেস ট্রেনে ওই ঘটনা ঘটে। ট্রেনটি পশ্চিমবঙ্গের হাওড়া স্টেশন থেকে মধ্যপ্রদেশের গোয়ালিয়রের মধ্যে চলাচল করে থাকে।

ওই ট্রেনের একজন যাত্রী বলেন, উত্তর প্রদেশ রাজ্যের বান্দা স্টেশন থেকে চার সাপুড়ের একটি দল সাপ খেলা দেখাতে ট্রেনে ওঠে। তাঁরা ট্রেনে বাঁশি বাজিয়ে সাপ খেলা দেখাতে শুরু করেন। এর বিনিময়ে তাঁদের একজন যাত্রীদের কাছে টাকা চান। এতে কেউ কেউ সাড়া দেন। আবার কেউ আপত্তি জানান। এতেই বাধে বিপত্তি।

ওই যাত্রী বলেন, সাপুড়েরা যাত্রীদের কাছ থেকে চাহিদামতো টাকা না পেয়ে কয়েকটি সাপ ট্রেনের মেঝেতে ছেড়ে দেন। এতে যাত্রীদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। তাঁরা এদিক-সেদিক ছুটতে থাকেন। সংশ্লিষ্ট বগির বেশির ভাগ যাত্রী আপার বার্থে (ওপরের আসন) উঠে পড়েন। আবার অনেকে শৌচাগারে আশ্রয় নেন। এমন পরিস্থিতি আধা ঘণ্টার বেশি সময় ধরে চলতে থাকে। পরে একজন ট্রেনের জরুরি নম্বরে ফোন করে বিষয়টি জানান।

রেলের মাহোবা স্টেশনের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা অখিলেশ প্রতাপ সিংহ বলেন, তাঁরা রেলের নিয়ন্ত্রণকক্ষ থেকে সাপ ছেড়ে দেওয়ার খবর পেয়ে সাপুড়েদের ধরতে তৎপরতা শুরু করেন। তিনি জানান, একপর্যায়ে সাপুড়েরা ওই সাপগুলো ধরে তাঁদের বাক্সে ঢোকান এবং বান্দার পরের স্টেশন মাহোবায় প্রবেশের আগমুহূর্তে ট্রেন থেকে নেমে যান।

অখিলেশ প্রতাপ সিংহ বলেন, এ বিষয়ে তাঁরা ট্রেনের যাত্রীদের সঙ্গে কথা বলেছেন। যাত্রীরা নিশ্চিত করেছেন, কোনো যাত্রীকে সাপে কামড়ায়নি।

Related posts

বড় পরিবর্তন আসবে অ্যাপলের নোটবুকে

Rubaiya Tasnim

মাশরাফির কমিটিতে সাকিব ছাড়াও আছেন যেসব তারকা

Samar Khan

নামাজের সময়সূচি: ৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

Asma Akter

Leave a Comment