লাইফ স্টাইল

টেডি বিয়ারের জন্য হাসপাতাল

টেডি বিয়ারের জন্য হাসপাতাল! ‘টেডি বিয়ারস ক্লিনিক’। বেলজিয়ামের রাজধানী ব্রাসেলসে একটি ব্যতিক্রমী চিকিৎসা কেন্দ্র রয়েছে। যেখানে শিশুরা তাদের খেলার পুতুল নিয়ে যায় চিকিৎসার জন্য। মূলত হাসপাতাল সম্পর্কে শিশুদের ভয় দূর করতেই এই অভিনব উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

টেডি বিয়ারস ক্লিনিক নামের হাসপাতালটি বেলজিয়ামে অবস্থিত। যেখানে ৪ থেকে ৭ বছর বয়সী শিশুরা তাদের টেডির চিকিৎসা করতে আসে। শিশুদের উপস্থিতিতে টেডি বিয়ারকে ইনজেকশন, অপারেশন, এক্স-রেসহ সব ধরনের চিকিৎসা দেওয়া হয়।

স্বেচ্ছাসেবকরা বলছেন, এটি ডাক্তারদের প্রতি শিশুদের ভয় কমাতে সাহায্য করে এবং ভবিষ্যতে চিকিৎসায় তাদের আরও সহযোগিতামূলক করে তোলে। নার্স লরিন আনসেলমো জানান, শিশুরা যদি কোনো কিছুতে ভয় পায় তবে তারা তাতে সহযোগিতা করতে চায় না।

আর টেডি বিয়ার ক্লিনিকে এসে তারা বুঝতে পারবে হাসপাতালে কীভাবে চিকিৎসা দেওয়া হয়। তাদের ভয় দূর হয়। পরে চিকিৎসকের কাছে গেলে তারা সহযোগিতামূলক আচরণ করবে, কান্নাকাটি করবে না। তাদের স্বাস্থ্য সম্পর্কেও কিছু জ্ঞান থাকবে বলে জানান তিনি।টেডি বিয়ার ক্লিনিকের এই ধারণাটি প্রথম চালু হয়েছিল জার্মানিতে। পরবর্তীতে ২০১২ থেকে বেলজিয়ামের বেশ কয়েকটি মেডিকেল কলেজ আকর্ষণীয় ও বৈচিত্র্যময় প্রোগ্রাম শুরু করে। এ কর্মসূচিতে চিকিৎসক, মেডিকেল শিক্ষার্থী ও নার্স স্বেচ্ছাসেবকরা যৌথভাবে অংশগ্রহণ করেন। চিকিৎসার পাশাপাশি তারা গান ও নাচের মাধ্যমে শিশুদের বিনোদন দেয়।

Related posts

এই গরমে সারাদিনে কমপক্ষে ১০-১২ গ্লাস তরল পান করুন।

Asma Akter

মুলা দিয়ে কখনো মুরগি রেঁধেছেন?

Suborna Islam

এই ই-স্কুটার চলবে এক চার্জে ১২৭ কিলোমিটার

Rubaiya Tasnim

Leave a Comment