ইসলাম ধর্মসর্বশেষ

মৃতের বাড়িতে খাওয়ার জন্য জমা হওয়া বিদআত

pickynews24

আমাদের দেশে অনেক অঞ্চলেই কেউ মারা গেলে তার বাড়িতে প্রায় বিয়েবাড়ির মতো ভোজের আয়োজন করা হয়। এটা বিদআত ও নিন্দনীয় কাজ। সাহাবিদের সময় থেকেই মৃতের বাড়িতে এ রকম ভোজ আয়োজনকে নিন্দনীয় ও নিষিদ্ধ কাজ বলে গণ্য করা হতো। জাবের ইবনে আবদুল্লাহ (রা.) বলেন, আমরা মৃতের দাফন শেষ হওয়ার পর তার বাড়িতে একত্রিত হওয়া এবং খাবারের আয়োজন করাকে নিষিদ্ধ পন্থায় শোক পালনের অন্তর্ভুক্ত গণ্য করতাম। (মুসনাদে আহমাদ)

রাসুলের (সা.) সুন্নত হলো, কারও মৃত্যু হলে তার প্রতিবেশীদের পক্ষ থেকে তার শোকাকুল পরিবার-পরিজনের জন্য খাবারের ব্যবস্থা করা যেন শোকের মধ্যে কাফন-দাফনের ব্যস্ততায় তাদের অনাহারে থাকতে না হয়। তা না করে উল্টো মৃতের বাড়িতে খাওয়ার জন্য জমা হওয়া বিদআত।

কারও মৃত্যুর পর তার বিচ্ছেদে আত্মীয়স্বজনদের শোকাকুল হওয়াই স্বাভাবিক। এ উপলক্ষে নিজেদের মৃত্যু ও আখেরাতের কথাও বিশেষভাবে স্মরণ করা উচিত। আমল বাড়িয়ে দেওয়া উচিত। এ সময় উৎসবের আমেজে ভোজ আয়োজন করা সম্পূর্ণ অযৌক্তিক ও মৃতের প্রতি অসম্মানজনকও বটে।

Related posts

সিলেটে মোটরসাইকেলের চাকা ফেটে শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীর মৃত্যু

Suborna Islam

জান্নাতিরা অনুভব করবে আল্লাহর দিদার বা দর্শন

Asma Akter

গানও শোনা যাবে স্মার্ট চশমায়

Samar Khan

Leave a Comment